ঢাকা ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কলাপাড়ায় বিষ পানে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যার চেষ্টা

filter: 0; fileterIntensity: 0.0; filterMask: 0; captureOrientation: 0; module: photo; hw-remosaic: false; touch: (-1.0, -1.0); modeInfo: ; sceneMode: 8; cct_value: 0; AI_Scene: (-1, -1); aec_lux: 35.0; aec_lux_index: 0; hist255: 0.0; hist252~255: 0.0; hist0~15: 0.0; albedo: ; confidence: ; motionLevel: 0; weatherinfo: null; temperature: 41;

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পারিবারিক কলহের জেরে এক সন্তানের জননী মুনিয়া বেগম (২২) বিষ পানে আত্মহত্যার চেষ্টা। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের সাফাখালী গ্রামে এ ঘটনাটি

ঘটেছে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তিনি ওই গ্রামের জামাল হোসেন গাজীর স্ত্রী ও মহিপুরের সিরাজপুর গ্রামের বশির মুন্সির মেয়ে।

মুনিয়া বেগম জানান, বিয়ের পর থেকে স্বামীসহ শশুরবাড়ির লোকজন তার উপর অত্যাচার ও নির্যাতন করে আসছে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বৈঠক করা হয়। ঘটনার দিন স্বামী ও বাড়ির লোকজন তাকে মারধর করে। সে অজ্ঞান হয়ে পরলে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয়া হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।

তবে, তার স্বামী জামাল হোসেন গাজী বলেন, স্বামী-স্ত্রী’র মাঝে সামান্য মনমালিন্য ও ঝগড়া হয়। পরে সে রাগ করে বিষ পান করে। অসুস্থ্য হয়ে পরলে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসেন বলে তিনি জানান।

কলাপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলি আহম্মেদ বলেন, এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ

কলাপাড়ায় বিষ পানে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যার চেষ্টা

Update Time : ০৩:৩৬:২০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৪

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পারিবারিক কলহের জেরে এক সন্তানের জননী মুনিয়া বেগম (২২) বিষ পানে আত্মহত্যার চেষ্টা। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মিঠাগঞ্জ ইউনিয়নের সাফাখালী গ্রামে এ ঘটনাটি

ঘটেছে। স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। তিনি ওই গ্রামের জামাল হোসেন গাজীর স্ত্রী ও মহিপুরের সিরাজপুর গ্রামের বশির মুন্সির মেয়ে।

মুনিয়া বেগম জানান, বিয়ের পর থেকে স্বামীসহ শশুরবাড়ির লোকজন তার উপর অত্যাচার ও নির্যাতন করে আসছে। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার শালিস বৈঠক করা হয়। ঘটনার দিন স্বামী ও বাড়ির লোকজন তাকে মারধর করে। সে অজ্ঞান হয়ে পরলে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয়া হয় বলে তিনি অভিযোগ করেন।

তবে, তার স্বামী জামাল হোসেন গাজী বলেন, স্বামী-স্ত্রী’র মাঝে সামান্য মনমালিন্য ও ঝগড়া হয়। পরে সে রাগ করে বিষ পান করে। অসুস্থ্য হয়ে পরলে কলাপাড়া হাসপাতালে নিয়ে আসেন বলে তিনি জানান।

কলাপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলি আহম্মেদ বলেন, এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি, অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।