ঢাকা ০২:২৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোট দিতে গিয়ে কেন্দ্রে এক বৃদ্ধার মৃত্যু

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর: রংপুরের পীরগাছায় ভোট দিতে গিয়ে কেন্দ্রে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন নওয়াব আলী (৭২) নামে এক বৃদ্ধ। বুধবার (৮মে) দুপুরে উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নে সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে।নওয়াব আলী পেশায় একজন কৃষক। তিনি সোনারায় গ্রামের বাসিন্দা। হৃদরোগে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছে পরিবার।স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুর ১টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে ভোট দিতে সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে যান নওয়াব আলী। সেখানে ভোট দেওয়ার আগে কেন্দ্রের পাশে প্রস্রাব করতে গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মাটিতে পড়ে যান। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করেন। ততক্ষণে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। বিষয়টি নিশ্চিত করে নওয়াব আলীর ছেলে আমিনুল ইসলাম জানান, দুপুরে ভ্যানে চড়ে ভোটকেন্দ্রে যান তার বাবা। সেখানে ভোট দেওয়ার আগে হঠাৎ প্রস্রাবের চাপ দিলে তিনি পাশের একটি টয়লেটে যান। সেখানে অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। এর আগেও দুইবার তার বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে (হার্ট অ্যাটাক) তিনি মারা গেছেন বলে পরিবারের ধারণা। সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা লুৎফর রহমান জানান, ওই ব্যক্তি কেন্দ্রের বাইরে মারা গেছেন। এটি কেন্দ্রের বাইরের ঘটনা। তবে তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। তিনি আরও জানান, ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৭০১ জন। এর মধ্যে বিকেল সোয়া ৩টা পর্যন্ত ১ হাজার ১৯৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। প্রসঙ্গত, প্রথম ধাপের নির্বাচনে রংপুরের দুই উপজেলা পীরগাছা ও কাউনিয়ায় চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জনসহ মোট ২৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।এর মধ্যে পীরগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- আবু নাছের শাহ মো. মাহবুবার রহমান, তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, আব্দুল্লাহ আল মিলন ও মনোয়ারুল ইসলাম মাসুদ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন শাহ মো. শারেখ খন্দকার জয়, জাফর ইকবাল, আব্দুর রহিম ও ফরহাদ হোসেন অনু। এছাড়া নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- রেহেনা বেগম, শারমিন আখতার, জরিনা বেগম, তানজিলা আফরোজ, ইশরাত জাহান সুইটি এবং মাহমুদা খাতুন। এই উপজেলায় তিনজন হিজড়াসহ ২ লাখ ৮১ হাজার ৬৯৮ জন ভোটার।অন্যদিকে কাউনিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আনোয়ারুল ইসলাম মায়া, আব্দুর রাজ্জাক ও হুমায়ুন কবির খান মুকুল লড়ছেন। এছাড়াও ভাইস চেয়ারম্যান পদে মাহমুদুল হাসান পিন্টু, মনজুদার রহমান মিলন, সুশান্ত সরকার, শফিকুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর কবির ও গনেশ কুমার চন্দ্র শর্মা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্যদিকে নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন সেলিনা খাতুন, রওশন আরা, রাবেয়া বেগম ও আঙ্গুরা খাতুন। কাউনিয়া উপজেলায় ২ হিজড়াসহ ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৪০ হাজার ৫৪৩ জন।রংপুরের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুলাহ আল মোতাহসিম জানান, সকাল থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ

ভোট দিতে গিয়ে কেন্দ্রে এক বৃদ্ধার মৃত্যু

Update Time : ০২:৩৫:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর: রংপুরের পীরগাছায় ভোট দিতে গিয়ে কেন্দ্রে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছেন নওয়াব আলী (৭২) নামে এক বৃদ্ধ। বুধবার (৮মে) দুপুরে উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নে সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটেছে।নওয়াব আলী পেশায় একজন কৃষক। তিনি সোনারায় গ্রামের বাসিন্দা। হৃদরোগে তার মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করছে পরিবার।স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুর ১টার দিকে বাসা থেকে বের হয়ে ভোট দিতে সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে যান নওয়াব আলী। সেখানে ভোট দেওয়ার আগে কেন্দ্রের পাশে প্রস্রাব করতে গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে মাটিতে পড়ে যান। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করেন। ততক্ষণে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। বিষয়টি নিশ্চিত করে নওয়াব আলীর ছেলে আমিনুল ইসলাম জানান, দুপুরে ভ্যানে চড়ে ভোটকেন্দ্রে যান তার বাবা। সেখানে ভোট দেওয়ার আগে হঠাৎ প্রস্রাবের চাপ দিলে তিনি পাশের একটি টয়লেটে যান। সেখানে অসুস্থ হয়ে মারা গেছেন। এর আগেও দুইবার তার বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে (হার্ট অ্যাটাক) তিনি মারা গেছেন বলে পরিবারের ধারণা। সোনারায় কারবালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা লুৎফর রহমান জানান, ওই ব্যক্তি কেন্দ্রের বাইরে মারা গেছেন। এটি কেন্দ্রের বাইরের ঘটনা। তবে তার মৃত্যুতে আমরা শোকাহত। তিনি আরও জানান, ওই কেন্দ্রে মোট ভোটার ২ হাজার ৭০১ জন। এর মধ্যে বিকেল সোয়া ৩টা পর্যন্ত ১ হাজার ১৯৫ জন ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। প্রসঙ্গত, প্রথম ধাপের নির্বাচনে রংপুরের দুই উপজেলা পীরগাছা ও কাউনিয়ায় চেয়ারম্যান পদে ৭ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ জনসহ মোট ২৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।এর মধ্যে পীরগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- আবু নাছের শাহ মো. মাহবুবার রহমান, তছলিম উদ্দিন চৌধুরী, আব্দুল্লাহ আল মিলন ও মনোয়ারুল ইসলাম মাসুদ। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন শাহ মো. শারেখ খন্দকার জয়, জাফর ইকবাল, আব্দুর রহিম ও ফরহাদ হোসেন অনু। এছাড়া নারী ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা হলেন- রেহেনা বেগম, শারমিন আখতার, জরিনা বেগম, তানজিলা আফরোজ, ইশরাত জাহান সুইটি এবং মাহমুদা খাতুন। এই উপজেলায় তিনজন হিজড়াসহ ২ লাখ ৮১ হাজার ৬৯৮ জন ভোটার।অন্যদিকে কাউনিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আনোয়ারুল ইসলাম মায়া, আব্দুর রাজ্জাক ও হুমায়ুন কবির খান মুকুল লড়ছেন। এছাড়াও ভাইস চেয়ারম্যান পদে মাহমুদুল হাসান পিন্টু, মনজুদার রহমান মিলন, সুশান্ত সরকার, শফিকুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর কবির ও গনেশ কুমার চন্দ্র শর্মা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। অন্যদিকে নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন সেলিনা খাতুন, রওশন আরা, রাবেয়া বেগম ও আঙ্গুরা খাতুন। কাউনিয়া উপজেলায় ২ হিজড়াসহ ভোটার সংখ্যা ২ লাখ ৪০ হাজার ৫৪৩ জন।রংপুরের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুলাহ আল মোতাহসিম জানান, সকাল থেকে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।