ঢাকা ০৯:১২ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর : রংপুরের গঙ্গাচড়ায় শুকতারা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে উপজেলার আলমবিদিতর ইউনিয়নের ল্যাংড়ার বাজার এলাকায় স্বামীর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।নিহত শুকতারা ওই এলাকার মাহবুব হাসান রাহাত ওরফে বল্টুর স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর সদর এলাকায়।স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৬ বছর আগে শুকতারার সঙ্গে বল্টুর বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছেলে সন্তান রয়েছে।সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের নারী ইউপি সদস্য মল্লিকা আক্তার জানান, গত পরশু দিন বল্টুর মা ও তার ছেলে রংপুরে এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। বাড়িতে তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনে ছিলেন।মঙ্গলবার সকাল দশটার দিকে বল্টু একা বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। এরপর দীর্ঘসময় ধরে শুকতারা বাড়ির বাইরে বের না হওয়ায় প্রতিবেশীরা তার খোঁজে ঘরে ঢুকে বিছানায় গলা ও হাতকাটা অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে খবর পেয়ে গঙ্গাচড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।মল্লিকা আক্তার আরও জানান, মাহাবুব হাসান রাহাত ওরফে বল্টু মাদকাসক্ত ছিলেন। তিনি আলমবিদিতর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মনছুর আলী সরকারের নাতি।গঙ্গাচড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান বলেন, শুকতারার গলা ও হাতকাটাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। শুকতারার স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসলে কথা বলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :

Write Your Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Save Your Email and Others Information

About Author Information

জনপ্রিয় সংবাদ

হু হু করে বাড়ছে তিস্তার পানি নদীপাড়ে আতঙ্ক বিরাজ

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার

Update Time : ০২:৫৩:৫৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

রিয়াজুল হক সাগর, রংপুর : রংপুরের গঙ্গাচড়ায় শুকতারা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৪ জুন) দুপুরে উপজেলার আলমবিদিতর ইউনিয়নের ল্যাংড়ার বাজার এলাকায় স্বামীর বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।নিহত শুকতারা ওই এলাকার মাহবুব হাসান রাহাত ওরফে বল্টুর স্ত্রী। তার বাবার বাড়ি দিনাজপুরের পার্বতীপুর সদর এলাকায়।স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১৬ বছর আগে শুকতারার সঙ্গে বল্টুর বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছেলে সন্তান রয়েছে।সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের নারী ইউপি সদস্য মল্লিকা আক্তার জানান, গত পরশু দিন বল্টুর মা ও তার ছেলে রংপুরে এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। বাড়িতে তারা স্বামী-স্ত্রী দুজনে ছিলেন।মঙ্গলবার সকাল দশটার দিকে বল্টু একা বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। এরপর দীর্ঘসময় ধরে শুকতারা বাড়ির বাইরে বের না হওয়ায় প্রতিবেশীরা তার খোঁজে ঘরে ঢুকে বিছানায় গলা ও হাতকাটা অবস্থায় তাকে পড়ে থাকতে দেখেন। পরে খবর পেয়ে গঙ্গাচড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।মল্লিকা আক্তার আরও জানান, মাহাবুব হাসান রাহাত ওরফে বল্টু মাদকাসক্ত ছিলেন। তিনি আলমবিদিতর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মনছুর আলী সরকারের নাতি।গঙ্গাচড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুমুর রহমান বলেন, শুকতারার গলা ও হাতকাটাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। শুকতারার স্বজনদের খবর দেওয়া হয়েছে। তারা আসলে কথা বলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।